মেটেবুক প্রিনা | Grey breasted Prinia | Prinia hodgsonii

865

bp110615ছবি: গুগল|

‘মেটেবুক প্রিনা’ সুদর্শন আবাসিক পাখি। সবখানেই কমবেশি এ পাখি নজরে পড়ে। মায়াবী চেহারা। স্বভাবে ভারী চঞ্চল। গাছের চিকন ডালে লাফিয়ে বেড়ায়। সারাদিন ব্যস্ত সময় কাটায় ওড়াউড়ি করে। বেশির ভাগই একাকী বিচরণ করে। কণ্ঠস্বর সুমধুর। গান গায় ‘চিপ চিপ চিপ’ সুরে।

এ পাখির বাংলা নাম: ‘মেটেবুক প্রিনা’। ইংরেজি নাম: ‘গ্রে বেস্ট্রেড প্রিনা’ (Grey-breasted Prinia)। বৈজ্ঞানিক নাম: ‘Prinia hodgsonii’। এরা ‘বুনো টুনি’ নামেও পরিচিত।

দৈর্ঘ্যে কমবেশি ১১-১৩ সেন্টিমিটার। স্ত্রী-পুরুষ দেখতে একই রকম। তবে পালক ভিন্ন। এ পাখির মাথা কালচে-ধূসর। ঘাড় ও পিঠের কিছু অংশ ধূসর। পিঠের বাদবাকি অংশ এবং ডানা লালচে-বাদামি। লেজ ধূসর। লেজের প্রান্ত পালক সাদা। বুক ধূসর। প্রজনন পালকে বুকে বন্ধনী রেখা থাকে এবং চোখের ওপর সাদা ভ্রু দেখা যায়। ঠোঁট কালো। চোখ কমলা-বাদামি। পা ও পায়ের পাতা হলুদ।

এ পাখির প্রধান খাবার কীটপতঙ্গ এবং ফুলের মধু। এদের প্রজনন মৌসুম জুন-জুলাই মাসে। অঞ্চলভেদে অবশ্য প্রজনন সময়ের হেরফের লক্ষ্য করা যায়। বাসা বাঁধে ভূমির কাছাকাছি গাছের চিকন ডালে। ডিম পাড়ে ৩-৪টি। ডিম ফুটতে সময় লাগে সপ্তাহ দুয়েক।

লেখক: আলম শাইন। কথাসাহিত্যিক, কলাম লেখক, বন্যপ্রাণী বিশারদ ও পরিবেশবিদ।
সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন, 11/06/2015